• Uncategorized
  • 0

‘সুশিক্ষাই কেবল দেশ ও জাতিকে সঠিক পথের দিশা দিতে পারে’-চবি উপাচার্য ড. ইফতেখার উদ্দীন চৌধুরী

জে.জাহেদ, বিশেষ প্রতিনিধি:

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দীন চৌধুরী বলেছেন, জীবনে বড় হতে হলে। লেখাপড়া খুব জরুরি। আর আলোকিত সমাজব্যবস্থা গড়ে তুলতে নৈতিক শিক্ষার কোন বিকল্প নেই। কারণ আজকের শিক্ষার্থীরা আগামী দিনের কর্ণধার।

তিনি শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, ‘তোমরা জাতিকে সঠিক বন্দরে পৌঁছে দিতে হলে বেশি বেশি লেখাপড়া করে মানুষের মত মানুষ হতে হবে। দেশকে নেতৃত্ব দেয়ার গুণাবলী অর্জন করতে হবে। সুশিক্ষাই কেবল দেশ ও জাতিকে সঠিক পথের দিশা দিতে পারে। তাই সবাইকে সুশিক্ষা অর্জনে বেশী মনোযোগী হতে হবে।’

গতকাল ১৩ এপ্রিল ২০১৯ শনিবার কর্ণফুলী উপজেলাধীন শিকলবাহা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মিলনায়তনে আলোর প্রতীক মেধা বৃত্তি পরীক্ষার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

আলোর প্রতীকের আহবায়ক সেলিম উদ্দিন সানির সভাপতিত্বে অনুষ্টিত পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে উদ্বোধক ছিলেন কর্ণফুলী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ফারুক চৌধুরী।

বিশেষ অতিথি ছিলেন শিকলবাহা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব জাহাঙ্গীর আলম, কর্ণফুলী উপজেলার ভাইস চেয়ারম্যান দিদারুল ইসলাম চৌধুরী, শিকলবাহা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা চক্রবর্তী, ইউপি প্যানেল চেয়ারম্যান শফিউল আলম, কর্ণফুলী উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক আমজাদ হোসেন, নিরাপদ সড়ক চাই চট্টগ্রাম মহানগর কমিটির সাধারণ সম্পাদক শফিক আহমেদ সাজীব, বিশিষ্ট সমাজসেবক আলহাজ্ব মহিউদ্দিন বকুল, কর্ণফুলী প্রাইভেট স্কুল এসোসিয়েশনের সভাপতি আলহাজ্ব শফিক আহমেদ সাদেকী।

আলোর প্রতীকের সদস্য সচিব আবদুল্লাহ আল মামুনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মহিলা মেম্বার রেহানা আক্তার আখি, জামাল আহমেদ সওদাগর, সাবেক ব্যাংকার হাজী আব্দুল বারেক, বেস্ট লাইফ ইন্সুরেন্স এর ভাইস চেয়ারম্যান হারুনুর রশিদ, চরলক্ষ্যা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক মাস্টার এম এ হাশেম, এ কে এম মির্জা আব্বাস আলী খান, কর্ণফুলী উপজেলা যুবলীগের সহ সম্পাদক মোহাম্মদ হানিফ, শিকলবাহা সমাজ কল্যাণ ফেডারেশনের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ ইমতিয়াজ উদ্দিন, মীর আহমদ সওদাগর, নিরাপদ সড়ক চাই কর্ণফুলী উপজেলার যুগ্ম সম্পাদক মোজাম্মেল হক, ইঞ্জিনিয়ার আবু সাদাত মোহাম্মদ সায়েম ও আরো উপস্থিত ছিলেন, মাস্টার মাসুক আহমেদ, মাস্টার নূর মোহাম্মদ, মনজুর মুরশেদ জিসান, জিয়াউল হক মাস্টার জাহাঙ্গীর আলম, আলী আল আকরাম, ইঞ্জিনিয়ার ইমতিয়াজ আরমান, শহিদুল ইসলাম রনি, মোঃ সাইদুর, সাইফুল ইসলাম, মিজানুর রহমান সিনহা, আইজুত হারুন আসিফ, সাকলাইন মোরশেদ পিকলু, আরাফাতুর রহমান রক্সি, তৌহিদুল ইসলাম জনি, মোঃ হাসান রানা, মাস্টার রেজাউল করিম, আবদুল আউয়াল রানা, মোহাম্মদ নুর উদ্দিন, মোঃ সাজ্জাদ, মোঃ নুরনবী, মোঃ রাকিব, মোঃ মহিউদ্দিন, মোঃ কায়সার, রাসেল প্রমুখ।

You may also like...