১১ ডিসেম্বর২০১৮, ২৭ অগ্রহায়ণ১৪২৫
1024x90-ad-apnar

সরকারি চাকরিতে কোটা প্রথা বাতিল চেয়ে রিট

Wednesday, 31/01/2018 @ 3:45 pm

সরকারি চাকরিতে কোটা প্রথা বাতিল চেয়ে রিট

নিউজ ডেস্ক: সরকারি চাকরিতে কোটা প্রথা বাতিল এবং তা পুনর্নির্ধারণ চেয়ে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়েছে।

বুধবার আইনজীবী একলাছ উদ্দিন ভূঁইয়া এ রিট দায়ের করেন।

রিটে মন্ত্রিপরিষদ সচিব, প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের সচিব, আইনসচিব, সংসদ সচিবালয়ের সচিব, জনপ্রশাসনসচিব, পিএসসির চেয়ারম্যানকে রিটে বিবাদী করা হয়েছে।

আগামী সপ্তাহে রিট আবেদনটি শুনানির জন্য উপস্থাপন করা হবে বলে জানান আইনজীবী একলাছ উদ্দিন ভূঁইয়া।

রিট আবেদনের বিষয়র আইনজীবী একলাছ উদ্দিন ভূঁইয়া বলেন, সরকারি চাকরিতে মুক্তিযোদ্ধাদের সন্তান ও নাতি-নাতনি, প্রতিবন্ধী, নারী, জেলা, ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীসহ সব প্রকার কোটা পদ্ধতি বাতিল এবং তা পুনর্নির্ধারণ চেয়ে এ রিট করা হয়েছে।

তিনি জানান, ১৯৭২ সালে এক নির্বাহী আদেশে সরকারি, বেসরকারি, প্রতিরক্ষা, আধা সরকারি এবং জাতীয়করণ করা প্রতিষ্ঠানে জেলা ও জনসংখ্যার ভিত্তিতে ৩০ শতাংশ মুক্তিযোদ্ধা ও ১০ শতাংশ ক্ষতিগ্রস্ত নারীদের জন্য কোটা প্রবর্তন করা হয়। পরবর্তীতে বিভিন্ন সময়ে কোটায় সংস্কার ও পরিবর্তন করা হয়। বর্তমানে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির সরকারি নিয়োগে কোটা যেমন, প্রতিবন্ধী এক শতাংশ, মুক্তিযোদ্ধার সন্তান-নাতি-নাতনি ৩০ শতাংশ, নারী ১০ শতাংশ, জেলা কোটা ১০ শতাংশ, ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী ৫ শতাংশ কোটা। সব মিলিয়ে ৫৬ শতাংশ কোটা বিদ্যমান। এই কোটা প্রথা সংবিধানের ১৯, ২৮ ও ২৯ অনুচ্ছেদের সঙ্গে সাংঘর্ষিক।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র আনিসুর রহমান মির, ঢাকাস্থ কুমিল্লা সাংবাদিক সমিতির সদস্যসচিব দিদারুল আলম ও দৈনিক আমাদের অর্থনীতির সিনিয়র সাব-এডিটর আব্দুল ওদুদ রিট আবেদনটি দায়ের করেন।