১৫ নভেম্বর২০১৮, ১ অগ্রহায়ণ১৪২৫
1024x90-ad-apnar

মাস্টারদা সূর্য সেনের জন্মদিন আজ

Thursday, 22/03/2018 @ 5:49 pm

মাস্টারদা সূর্য সেনের জন্মদিন আজ

নিউজ ডেস্ক: আজ ২২ মার্চ। ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলনের নায়ক, অগ্নিযুগের বিপ্লবী মাস্টারদা সূর্য সেনের জন্মদিন আজ। সূর্য সেন ১৮৯৪ সালের এ দিনে চট্টগ্রাম জেলার রাউজান থানার নোয়াপাড়া গ্রামে জন্মগ্রহণ করেছিলেন।

সূর্য সেনের বাবা রাজমনি সেন, মা শশী বালা সেন। সূর্য সেন ছেলেবেলা থেকে খুব মনোযোগী ভালো ছাত্র এবং ধর্মভাবাপন্ন গম্ভীর প্রকৃতির ছিলেন। ১৯১২ সালে চট্টগ্রামের নন্দনকাননে অবস্থিত হরিশদত্তের ন্যাশনাল স্কুল থেকে প্রবেশিকা (এন্ট্রান্স) পাস করে চট্টগ্রাম কলেজ হতে এফ এ (এইচএসসি) পাস করেন এবং বহরমপুর কৃষ্ণনাথ কলেজ থেকে বিএ পাস করেন।

পড়াশোনা শেষ করে চট্টগ্রামে ফিরে এসে আচার্য্য হরিশদত্তের জাতীয় স্কুলে শিক্ষকতা শুরু করেন। অসহযোগ আন্দোলনের সময় বিদ্যালয়টি বন্ধ হয়ে গেলে তিনি দেওয়ানবাজারে বিশিষ্ট উকিল অন্নদা চৌধুরী প্রতিষ্ঠিত অধুনালুপ্ত ‘উমাতারা উচ্চ ইংরেজি বিদ্যালয়ে’ অঙ্কের শিক্ষক হিসেবে যোগ দেন। এ সময় বিপ্লবী দলের সঙ্গে তার সম্পর্ক গভীরতর হয়ে ওঠে এবং শিক্ষকতা করার কারণে তিনি ‘মাস্টারদা’ হিসেবে পরিচিত হন।

১৯২০ সালে গান্ধীজী-কর্তৃক অসহযোগ আন্দোলন শুরু হলে অনেক বিপ্লবী এই আন্দোলনে যোগ দেন। সূর্য সেন অসহযোগ আন্দোলনে যোগ দিলেন। রেলওয়ে ডাকাতি মামলা শুরু হয় সূর্য সেন এবং অম্বিকা চক্রবর্তীকে নিয়ে। ১৯২৮ সালের শেষভাগে সূর্য সেন ও গণেশ ঘোষ জেল থেকে ছাড়া পান। ফাঁসির মঞ্চে যাওয়ার আগে সাথীদের উদ্দেশে সূর্য সেন লিখে গেলেন, ‘আমি তোমাদের জন্য রেখে গেলাম মাত্র একটি জিনিস, তা হলো আমার এটি সোনালি স্বপ্ন। স্বাধীনতার স্বপ্ন। প্রিয় কমরেডস, এগিয়ে চলো। সাফল্য আমাদের সুনিশ্চিত।’

১৯৩৪ সালের ১২ জানুয়ারী চট্টগ্রামের কেন্দ্রীয় কারাগারে ব্রিটিশ সরকার এ বীর বাঙারীকে ফাঁসি দিয়েছিল।

বাংলার মাটিতে কোথাও যেন তাঁর চিহ্ন না থাকে এজন্য তাঁর লাশ বস্তাবন্দী করে সমুদ্রে ফেলে দেয়া হয়। কিন্তু বিপ্লবী আত্মার যে মৃত্যু নেই। সূর্য সেন এ দেশের নির্যাতিত মানুষের হৃদয়ে তাই আজও অমর।