১৮ জুন২০১৮, ৪ আষাঢ়১৪২৫
1024x90-ad-apnar

পটিয়ায় প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় তরুণীকে অপহরণ

Friday, 28/08/2015 @ 5:52 am

পটিয়ায় প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় তরুণীকে অপহরণ

পটিয়া অফিস:= পটিয়ায় প্রেমের প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় তরুণীকে অপহরণ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ বিষয়ে অপহৃতা তরুণীর বাবা বাদী হয়ে ৪ জন কে আসামী সাত-আট জনকে অজ্ঞাতনামা করে পটিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

মামলার আসামীরা হলেন ,কেলিশহর খিল্লপাড়া গ্রামের মো: হেলাল(২২), মো:শহীদ (২৩),আবদুল আলম (৪৫) মো: আকতার(২০)।

থানায় দায়েরকৃত মামলা সূত্রে জানা যায়,পটিয়া উপজেলার কেলিশহর ইউনিয় ৬নং ওর্য়াড খিল্লপাড়া গ্রামের মো: আরজ মিয়া কন্যা মোছাম্মৎ শারমিন আকতার (১৮) কে দীর্ঘদিন ধরে উত্ত্যক্ত করে আসছিলো একই গ্রামের মো: আবদুল আলমের পুত্র মো: হেলাল (২২)। কিন্তু এতে শারমিন রাজি না হলে গত ২৭ আগষ্ট হেলাল তাকে দলবল নিয়ে অপহরণ করে। ঐসময় শারমিন পটিয়া থানাধীন আমির ভান্ডার দরবার শরীফ মাজার জিয়াতের উদ্দেশ্যে ঘর থেকে বেড় হয়েছিলো।

আরো জানাযায় ঘটনার পর বিশ্বস্ত সূত্রে অপহরণকারীদের সম্পর্কে জানতে পারলে অপহরণকারী হেলালের পরিবারবগের সাথে যোগাযোগ করে মেয়েকে ফিরিয়ে দিতে বারবার অনুরোধ জানানো হয়। কিন্তু তারা কোন সাড়া দেয়নি। এভাবে ৮-৯ ঘন্টা অপেক্ষার পর বাধ্য হয়ে শারমিনের বাবা আরজ মিয়া বাদী হয়ে পটিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করে মেয়েকে উদ্ধারের আবেদন জানান।

অপহৃতার অবিভাবকরা জানান, যাতায়াতের পথে হেলাল তাকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে ব্যর্থ হয় ও আগামী মাসের ১০ তারিখ আমার মেয়ের বিবাহের দিন ধার্য্য করার কথা শুনে এ ঘটনা ঘটিয়েছে।

পটিয়া থানার ওসি রেফায়েত উল্লাহ চৌধুরী বলেন এ ঘটনায় থানায়  মামলা হয়েছে।আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চালাচ্ছি।এ বিষয়ে কোন অবহেলা করা হচ্ছে না বলে জানান তিনি।