১৮ জুন২০১৮, ৪ আষাঢ়১৪২৫
1024x90-ad-apnar

ডিআইজি মিজানুর রহমানকে প্রত্যাহার

Tuesday, 09/01/2018 @ 5:18 pm

ডিআইজি মিজানুর রহমানকে প্রত্যাহার

নিউজ ডেস্ক: জোর করে এক নারীকে বিয়ে করাসহ বিভিন্ন অভিযোগে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) অতিরিক্ত কমিশনার মিজানুর রহমানকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। বর্তমানে তাকে পুলিশ সদর দপ্তরে সংযুক্ত করা হয়েছে।

মঙ্গলবার রাজারবাগে পুলিশ সপ্তাহ উপলক্ষে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল এ বিষয়টি জানিয়েছেন। ডিআইজি মিজানের বিরুদ্ধে পরবর্তী পদক্ষেপ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় নেবে বলেও জানান তিনি।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এখন পুলিশ সপ্তাহ চলছে। এটা শেষ হলে ডিআইজি মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে তদন্ত করা হবে। অভিযোগ প্রমাণিত হলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তিনি বলেন, ‘পুলিশের যত বড় কর্মকর্তাই হোক না কেন, কেউ আইনের ঊর্ধ্বে নয়। তিনি (ডিআইজি) যদি এমন গর্হিত কাজ করেন তাহলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এজন্য পুলিশের অভ্যন্তরীণ তদন্ত করা হচ্ছে।’

মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে এক নারী অভিযোগ করেন, পান্থপথের স্কয়ার হাসপাতালের কাছে তার বাসা। সেখান থেকে কৌশলে গত বছরের জুলাই মাসে তাকে তুলে নিয়ে যান পুলিশ কর্মকর্তা মিজান। পরে বেইলি রোডের তার বাসায় নিয়ে তিন দিন আটকে রাখে। বগুড়া থেকে তার মাকে ১৭ জুলাই ডেকে আনা হয় এবং ৫০ লাখ টাকা কাবিননামায় মিজানকে বিয়ে করতে বাধ্য করা হয়। পরে লালমাটিয়ার একটি ভাড়া বাড়িতে তাকে স্ত্রীর মর্যাদা দিয়ে রাখেন মিজান। অথচ মিজান পূর্ব-বিবাহিত।

ওই নারীর অভিযোগ, কয়েক মাস কোনো সমস্যা না হলেও ফেসবুকে স্ত্রী পরিচয় দিয়ে একটি ছবি তোলার পর ক্ষিপ্ত হন মিজান। ভাঙচুরের মিথ্যা একটি মামলা দিয়ে তাকে গত ১২ ডিসেম্বর কারাগারে পাঠানো হয়। সেই মামলায় জামিন পাওয়ার পর মিথ্যা কাবিননামা তৈরির অভিযোগে আরেকটি মামলা করানো হয়। ওই মামলাতেও জামিনে বেরিয়ে এসে ডিআইজির বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলেন ওই নারী।