১৭ ডিসেম্বর২০১৮, ৩ পৌষ১৪২৫
1024x90-ad-apnar

চট্টগ্রামে ৪৭তম জাতীয় সমবায় দিবস পালিত

Sunday, 25/11/2018 @ 5:43 pm

চট্টগ্রামে ৪৭তম জাতীয় সমবায় দিবস পালিত

নিউজ ডেস্ক: ‘সমবায় ভিত্তিক সমাজ গড়ি, টেকশই উন্নয়ন নিশ্চিত করি’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে চট্টগ্রামে ৪৭তম জাতীয় সমবায় দিবস পালিত হয়েছে।

রোববার সকাল ১০টায় ষোলশহরস্থ এলজিইডি মিলনায়তনে জাতীয় ও সমবায় পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে দিবসের মূল কার্যক্রম শুরু হয়। এরপর বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে অনুষ্ঠানের শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করা হয়। এর আগে সকাল সাড়ে ৯টায় ষোলশহরস্থ এলজিইডি ভবন থেকে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের হয়ে ২নং গেইট এলাকা প্রদক্ষিণ করে পুনরায় এলজিইডি ভবন প্রাঙ্গনে গিয়ে শেষ হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার মো. আবদুল মান্নান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, সমবায় ভিত্তিক সমাজ গঠনের মাধ্যমে টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিত করা সম্ভব। সবাই মিলে মিশে উৎপাদনমুখী পেশা ভিত্তিক সমবায় সমিতি গঠনের মাধ্যমে কর্মসংস্থান সৃষ্টি, দারিদ্র বিমোচন সহ দেশের সুষম উন্নয়ন এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর ঘোষিত দিন বদলের সনদ বাস্তবায়ন সম্ভব।

সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম জেলা সমবায় কর্মকর্তা উপ-নিবন্ধক শেখ কামাল হোসেন এবং “সমবায় ভিত্তিক সমাজ গড়ি, টেকসই উন্নয়ন নিশ্চিত করি” শীর্ষক দিবসের মূল প্রতিপাদ্য বিষয়ের উপর প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন চট্টগ্রাম বিভাগীয় সমবায় দপ্তরের উপ-নিবন্ধক (বিচার) আশীষ কুমার বড়ুয়া।

এছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে আরো বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম রেঞ্জের উপ-মহাপুলিশ পরিদর্শক খন্দকার গোলাম ফারুক (বিপিএম,পিপিএম)। শাহাবুদ্দিনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন চট্টগ্রাম বিভাগীয় সমবায় দপ্তরের যুগ্ম-নিবন্ধক দিদার উদ্দিন আহম্দে। বক্তব্য রাখেন উপ-নিবন্ধক (প্রশাসন) মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন, সহকারী নিবন্ধক কানিজ ফাতেমা, উপ-সহকারী নিবন্ধক মুরাদ আহাম্মদ, ডবলমুরিং থানা সমবায় অফিসার শহিদুল ইসলাম, পাঁচলাইশ থানা সমবায় অফিসার সুমিত কুমার দত্ত, কোতোয়ালী থানা সমবায় অফিসার মোঃ আনিসুল ইসলাম ও চট্টগ্রাম জেলা সমবায় কার্যালয়ের পরিদর্শক মোঃ সামসুদ্দিন ভূঁইয়া, ওছমান গণি ও অর্পণ দাশ গুপ্ত প্রমুখ। বিভিন্ন সমবায় সমিতির নেতৃবৃন্দ অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন। এ ছাড়া প্রধান অতিথির হাত থেকে ১৪টি শ্রেষ্ঠ সমবায় সমিতি সম্মাননা ও ক্রেষ্ট গ্রহণ করেন। অনুষ্ঠান শেষে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হয়।