১৭ ডিসেম্বর২০১৭, ৩ পৌষ১৪২৪
1024x90-ad-apnar

চট্টগ্রামের সকল শ্রেণী-পেশার মানুষ আমাকে মেয়র হিসেবে দেখতে চায়: আজম নাছির

Thursday, 08/01/2015 @ 4:46 pm

27258ef4bfc1bc6116346ac351bd9ed3চট্টগ্রাম অফিস: চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র নির্বাচনের জন্য যাবতীয়  প্রস্তুতি  নিয়ে রেখেছেন বলে জানিয়েছেন নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আ.জ.ম নাছির উদ্দিন। দলীয় মনোনয়ন পেলে তিনি জয়ী হবেন বলেও জানান চট্টগ্রাম নিউজকে।  মেয়র নির্বাচন নিয়ে সম্প্রতি তিনি চট্টগ্রাম নিউজকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে-নিজে প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা দিয়ে বলেন, চট্টগ্রাম শহরের আদি বাসিন্দাদের মধ্যে অনেক দিনের দুঃখ এবং কষ্ট রয়েছে, তারা কখনো নেতৃত্বে আসতে পারছেনা। দীর্ঘদিন পর আমি মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক হয়েছি। এখন তারা খুশি-আমাকে মেয়র নির্বাচনের জন্য বলছেন। আমার সাথে নিয়মিত যোগাযোগ করছেন। আশাবাদ ব্যক্ত করে বলেন, মহিউদ্দিন চৌধুরী তিনবারের সফল মেয়র ছিলেন, আমি উনার (মহিউদ্দিন চৌধুরীর) সফলতাকে কাজে লাগাবো।

চট্টগ্রামের সকল শ্রেণী-পেশার মানুষ আমাকে মেয়র হিসেবে দেখতে চায়। তারা তাদের মনের কথা আমাকে বলেছেন। জাতীয় ও স্থানীয় সরকার নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী এখন তরুণ নেতৃত্বকে প্রাধান্য দিচ্ছেন উল্লেখ্য করে তিনি বলেন, সব দিক বিবেচনা করে আমি মনে করি মেয়র নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার ব্যাপারে আমি আশাবাদী।
আ.জম নাছির উদ্দিন বলেন, বিগত সময়ে মহিউদ্দিন চৌধুরী দলের সাধারণ সম্পাদক থাকাকালীন সময়ে মেয়র নির্বাচন করেছেন। পরপর তিনি তিনবার মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি সফল মেয়র। আমিও এখন যেহেতু দলের সাধারণ সম্পাদক সবাই মনে করছেন এখনই নাগরবাসীর সেবা করার সুর্বন সুযোগ। তাই নগরবাসীর চাহিদা পূরনসহ নাগরিক সেবা নিশ্চিত করতেই মেয়র নির্বাচনের সিদ্ধান্ত নিয়েছি।
আওয়ামী লীগের মধ্যে মেয়র প্রার্থী অনেক-এই ক্ষেত্রে নিজেদের অভ্যন্তরিন কোন্দল মিটিয়ে জয়ের সম্ভাবনা কতটুকু জানতে চাইলে আ.জ.ম নাছির উদ্দিন বলেন, নগর আওয়ামী লীগের মধ্যে কোন কোন্দল নেই। সভাপতি (এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী) এবং আমি অভিন্ন চিন্তায় কাজ করবো। এখনো আমাদের মধ্যে কোন মত পার্থক্য নেই। আমাকে মনোনয়ন দিলে আমি উনাকে (এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীকে) নিয়ে কাজ করবো। আর উনাকে দিলেও উনি বলেছেন আমাকে নিয়ে কাজ করবেন।
আজম নাছির আরো বলেন, এটা স্থানীয় সরকার নির্বাচন দল সরাসরি মনোনয়ন দেন না। পরোক্ষ ভাবে মনোনয়ন দিয়ে থাকেন। ইতোমধ্যে প্রধানমন্ত্রী যেভাবে বলেছেন (প্রধানমন্ত্রী চট্টগ্রামে মুরাদপুর-লালখান বাজার ফ্লাইওভার উদ্বোধনে এসে চট্টগ্রামের নেতাদের বসে প্রার্থী ঠিক করার জন্য বলেছিলেন) সেই ভাবেই আমরা মহানগর আওয়ামী লীগ বসে সিদ্ধান্ত নেবো। এই সিদ্ধান্ত আমরা নেত্রীকে জানাবো উনি যাকেই মনোনয়ন দেন-তার জন্য সবাই ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করবো। এই ক্ষেত্রে সভাপতি এবং আমি এক মত আছি। আমাদের মধ্যে এই ব্যাপারে কোন দ্বিমত নেই এবং মত পার্থক্য হবেনা।
আওয়ামী লীগের একাধিক প্রার্থীর ব্যাপারে নগর আওয়ামী লীগের এই শীর্ষ নেতা  জানান, যে কেউ প্রার্থী হতে পারেন। তবে প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষ ভাবে দল যাকে মনোনদলের দিবে তার পক্ষে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করতে হবে।
সিডিএর ছালাম সাহেব দলের শৃঙ্খলার বিঘ্ন সৃষ্টি ঘটাতে পারে এই কারনে তাকে চিঠি দিয়ে জানিয়ে দেয়া হয়েছে। মেয়র নির্বাচনে তিনি প্রার্থী হওয়ার আগ্রহ ব্যক্ত করতে পারেন। তবে দলের কোন মতামত না নিয়ে ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে সভা করাটা দলের শৃঙ্খলা ভঙ্গ হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। তাই উনাকে এআ ব্যাপারে চিঠি দেয়া হয়েছে। এখানে বিরোধীতার কিছু নেই। দলের ভেতর থেকে সভায় অভিযোগ উঠেছে-তাই উনকে চিঠি দিলাম।
নিজের সাংগঠনিক অবস্থানের কথা ব্যক্ত করতে গিয়ে আজম নাছির উদ্দিন এই প্রতিবেদককে জানান, আমি ছাত্রলীগ থেকে রাজনীতি করতে করতে আজকের এই পর্যায়ে এসেছি। আমি বিগত সময়েও দলের জন্য কাজ করেছি। তাই চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনকে দেশের একটি অনন্য মডেল সিটি কর্পোরেশনে রূপান্তর করবো। জলাবদ্ধতাকে প্রধান্য দিয়ে পরিস্কার-আধুনিক পরিবেশ বান্ধব দৃষ্টিনন্দন কর্পোরেশনে পরিণত করার ঘোষণা দেন আজম নাছির উদ্দিন।