কর্ণফুলীর পাড়ে দ্বিতীয় দিনের মত উচ্ছেদ অভিযান শুরু

কর্ণফুলীর পাড়ে দ্বিতীয় দিনের মত উচ্ছেদ অভিযান শুরু

কর্ণফুলীর পাড়ে দ্বিতীয় দিনের মত উচ্ছেদ অভিযান শুরু

চট্টগ্রাম অফিস: কর্ণফুলী নদীর পাড়ে অবৈধ স্থাপনা সরাতে দ্বিতীয় দিনের মত অভিযান শুরু করেছে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন।

মঙ্গলবার সকালে শুরু হওয়া এ অভিযানে এখন পর্যন্ত ১০টি অবৈধ স্থাপনা গুঁড়িয়ে দেয়া হয়েছে। অভিযানে নেতৃত্ব দিচ্ছেন পতেঙ্গা সার্কেলের সহকারী কমিশনার (ভূমি) তাহমিলুর রহমান।

অভিযানে জেলা প্রশাসনকে সহায়তা করছেন পুলিশ, র‌্যাব, চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন, চট্টগ্রাম উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ, বিআইডব্লিউটিএ, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ, বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডসহ সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলো।

চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের সিনিয়র সহকারী কমিশনার নোবেল চাকমা ও র‌্যাব-৭ এর সহকারী পুলিশ সুপার কাজী মোহাম্মদ তারেক আজিজের নেতৃত্বে দুই শতাধিক পুলিশ ও র‌্যাব সদস্য উচ্ছেদ অভিযানে ম্যাজিস্ট্রেটকে সহযোগিতা করছেন।

নোবেল চাকমা বলেন, ‘সদরঘাট থানার এলাকার কর্ণফুলী ঘাট এলাকা থেকে উচ্ছেদ অভিযান চলছে। অভিযানে সহযোগিতা করছে পুলিশ ও র‌্যাবের দুই শতাধিক সদস্য।’

সহকারী কমিশনার (ভূমি) তাহমিলুর রহমান জানান, দখলমুক্ত হওয়ার পর কেউ যাতে আবারো স্থাপনা তৈরি করতে না পারে সেজন্য সীমানা পিলার বসানো হবে। পাশাপাশি তীরে সবুজায়ন করা হবে।

হাইকোর্টের নির্দেশনা বাস্তবায়নে কর্ণফুলীর নদীর দুই পাড়ের উচ্ছেদ অভিযানের প্রথম দিন গতকাল সোমবার ১ কিলোমিটার এলাকা দখলমুক্ত করা হয়েছে। এ সময় ৮০টি অবৈধ স্থাপনা সরিয়ে ৪ একর ভূমি উদ্ধার করা হয়।